Sunday, April 18, 2021

প্রেম একলব্য

প্রেম একলব্য 
.. ঋষি 
একটা মরা মানুষের গল্প লিখবো 
লিখবো তোমার রক্তের ভিতর গঙ্গা জলে আমি, 
অদ্ভুত যাতনা জানো 
তোমার প্রতিটা রক্তবিন্দু এই মুহুর্তে আমি হতে চাইছে, 
হতে চাইছে নগ্ন কিছু প্রশ্রয়
এই বুকের আগুনে পুড়তে থাকা শ্মশানে । 
.
ভালোবাসি মানে কষ্ট 
ভালোবাসার পথভ্রষ্ট 
আমি তুমি এই পদ্যে খুঁজে ফিরছি আশ্রয় 
গাছের দেওয়ালে, নৌকার খোলে, পথের ভুলে 
শুধু আগলে রেখেছি হৃদয়। 
.
সব জান্তা কাব্য জুড়ে পুরনো পাঠ 
পুরনো ভয় 
বন্দুকের নলের সামনে একটা হৃদয় শুধু কবিতা লেখার 
সময়ের খাঁড়ার নীচে একটা বুক শুধু জলপ্রপাত। 
বুলেটিনে খবর 
কবির মৃত্যুর খবর সকলে রাখে 
অথচ কবির জন্মের খবর আজও অচেনা, 
কবির জন্মের ভালোবাসা আকাশ, বাতাস আর পবিত্রতা
হাজারো নারীতে কবি বিলীন 
অথচ কবির কলমে চলন্তিকা চিরকালীন 
এক কন্যা 
আর প্রেম একলব্য। 

ভালোবাসা মানে তুমি

ভালোবাসা মানে তুমি 
... ঋষি 
কিছু জিনিস ভাঙবার শব্দ হয় না
কিছু প্রশ্নের উত্তরে লেখা যায় না সত্যি ভালো থাকা,
আমার বুকের পোস্টমার্টেন করে দেখো 
এখানে রঙিন রোদ, বরফের পাহাড়, সবুজ দিগন্ত, আমার শৈশব 
সব একলা দাঁড়িয়ে অপেক্ষায়? 
.
আগেই বলেছি মানুষের ভালো থাকা একটা আর্ট 
মিথ্যের পাহাড়, 
শুধু বাইরের শরীরটার উপস্থিতি নিয়ে সোনালী রোদ, ছিনিমিনি 
কাটাছেঁড়া বাজারি দপ্তরে সকলেই ব্রাত্য
নিজের আয়নায় মুখ লাগিয়ে দেখো 
ব্রাত্য এই সময়। 
.
উজবুক কিছু প্রান্তর 
সতী সেজে সকলেই দাঁড়িয়ে বেশ্যার শাড়িতে আজব দুনিয়ায়, 
তবু শাড়ির ভাঁজ 
পোশাকি মহব্বত, দুষমন জামানা চিরকাল। 
ভালোবাসা মানে শরীর নয় 
ভালোবাসা ক্লিভজে উঁকি মারা তোমার স্তন নয় 
ভালোবাসা মানে আমি ঈশ্বর  চিরকাল 
ভালোবাসা মানে আজানের দেওয়ালে চৈতন্য 
ভালোবাসা হলো তোমাকে শুনতে চাওয়া
ভালোবাসা হলো তোমার বিশ্বাসে সাত, সমুদ্র পার 
ভালোবাসা হলো কাঁটার মুকুট 
ভালোবাসা মানে তুমি 
আর আমি 
লোভী চিরকাল বাঁচতে চাওয়ায়। 

Friday, April 16, 2021

প্রকৃতি ও পুরুষ

পুরুষ ও প্রকৃতি 
.....  ঋষি 
পুরুষ ও প্রকৃতি 
সম্পুর্নতায় প্রেম, 
বুক খুলে, বুকের জমিনে পা দিয়ে উঠে আসা নারী
সার্বিক গঠন 
প্রগতির অন্তরায়,এক স্নেহময়ী সুখ। 
.
আমি জন্মের কথা জানি না নারী
আমি জানি না তোমার ক্লিভেজের আড়ালে লোকানো মেদুরতা, 
আমি চোখ চিনি 
চিনি তোমার গভীরতায় জন্ম ঘুমিয়ে প্রকৃতির আঙিনায়
সেলাম তোমায় নারী। 
.
তোমার আলতা পা 
নবরেণু তুমি আদরের ভুমিকায় সাজিয়ে রেখেছো সময়ের সংসার
আমি নতজানু পুরুষ 
আমি ভাবুক প্রেমিক ও কবি
আমার কবিতার বুকে হাজারো আঙ্গিকে তুমি 
শুধু দাগ টেনে যাও। 
অজস্রতা যেখানে ঐশ্বরিক ভাবনায় পাল তোলা নৌকা
সেখানে তুমি হৃদয়ের ঘর লুকিয়ে নেও চোরাবালিতে 
তোমার মহাকীর্তনে 
তোমার মহিমায় তুমি দেবীরুপে ভুষিত
তুমি ছাড়া অসম্প্রসারিত প্রকৃতি ও পুরুষ 
আমি সাধারণ 
তুমি দেবীমুখ। 

আজকের আয়না


 আজকের আয়না 

.... ঋষি 


কবিতার শব্দরা সব ক্লান্ত হয়ে যাচ্ছে আগামীতে ভয়ে 

সকলেই জানে, বিপ্লব মরে গেলে জনগণ অপেক্ষায় থাকে 

অন্য বিপ্লবের ,

মানুষ মরে  যাচ্ছে  পাথরে, ফুটপাথে ,হসপিটালের বাইরে 

চারিদিকে হাততালি 

সাব্বাশ টু থাউজেন্ড টোয়েন্টি ওয়ান 

শহরে কফিন ঘুরছে। 

.

অচেনা মানুষ এই শহরে  লাশ হবে বলে

দরদাম হচ্ছে বেওয়ারিশ হৃদয় 

ভয় করছে চলন্তিকা 

তুমি ,আমি ,আমরা সকলে এক লাইনে দাঁড়িয়ে অপেক্ষা করছি 

কিংবা সময় গুনছি 

ফুরিয়ে যাওয়ার আগে নিয়মিত চোখ রাখছি টিভির জানলায়। 

.

দোকানপাট বন্ধ ,বন্ধ সেলুন ,মুদিখানা ,গাড়ির দোকান ,চায়ের দোকান 

পাড়ার ব্যারিকেডে দাঁড়িয়ে আছে সাদা পোশাকের ঈশ্বর 

ওদিকে কেউ যাবেন না 

আমরা দেখেছি টু থাউজেন্ড টোয়েন্টি ,আমরা বেঁচেছি ,

কিন্তু এবার ভয় করছে 

সারা শহর জুড়ে আগামীর মৃতদেহগুলো হয়তো  মুখ দেখছে 

আজকের আয়নায়। 

.

সকলে ভেসে আছি আজ ভয়ের সমুদ্রে 

বুঝতে পারছি না 

আমাদের বেঁচে থাকার নৌকাগুলো ক্রমশ প্রকাশিত অসহায় ,

রাষ্ট্র কি করছে ?

মিথ্যের মত করে করে সত্য

সত্যের মত করে করে মিথ্যে

না আর লিখতে পারছি না 

আর দেখতে পারছি না সারা শহরে ছড়ানো মানুষের মৃতদেহ 

সারি দেওয়া লাশ শ্মশানের গায়ে ,

হা ঈশ্বর 

আর হাঁটতে পারছি না এই শহরে ,এই সময়ে ,এই রাষ্ট্রে 

প্লিজ একটা সান্তনা 

প্লিজ একটা মাস্ক 

প্লিজ স্যানিটাইজ ইউর হ্যান্ড

প্লিজ কিপ ডেসটেনসিং ,

না তবু ভয় পাচ্ছি ,আমি ভীষণ সাধারণ 

মরতে চাই না আমি। 

Thursday, April 15, 2021

একটা বোধ

একটা বোধ 
... ঋষি 
​১
তোমার যতটুকু ভাবনা  তারচেয়েও বিশাল একটা  আগামি 
বাঁধা আছি বুকের স্তম্ভে রক্ত বিপ্লব
কী স্বভাব, কবি স্বভাব মিলেমিশে নেশা হয়
 তবুও আফিম  খাই।
 কীভাবে তোমাকে  বিছানায় নিয়ে এসে ফেলি 
ঢুকে যাই
দিন, তারিখ আর বয়স।
মিছিল নিয়ে বার কয়েক ভাবি
ভাবি বাড়তে থাকা আতংকের ক্লাইম্যাক্সে অনেকগুলো বডি
সময়ের বারান্দায় নিজের থুথু চেটে খাই। 
বলো ব্রহ্ম, বলো আয়ু
এইভাবে বারান্দায় জড়ো হয়ে বসে মিছিল,
 একা একা হাঁটি স্লোগানে 
রাজনিতী নিয়ে বদঅভ্যাস, রাজার গোলাম সকলে। 


আজ ফোন, শব্দগুলোয় তোমাকে শুনতে পাই 
 এইভাবে জীবন থেকে তুমি ' চলে যাও,আবার ফিরে আসো
মাঝখানে সংবাদ 
বাঁচতে শেখা,
 কাল  কী হবে ভেবে আজকের আরও দু-চার পেগ 
আজ নেশা, কাল মেশা। 
মৃদু আলো শুধু
আজ অবধি বুঝতে পারি না তোমার বাড়িতে দুধ আসে কেন?
 দুধ তো বৃথা নয়।
একটা প্লাস, মাইনাস খেলা খেলবো ভাবছি জীবন
 উঠছি নামছি, অথচ ভাঙচি না
একতা পরিমিত বোধ নিয়ে মে মাসের রোদ নিয়ে
রবীন্দ্রনাথ জন্মাচ্ছে। 

 

Wednesday, April 14, 2021

ভালো থাকুক মানুষ



 ভালো থাকুক  মানুষ 

.... ঋষি 


শুভ  নববর্ষ 

সময়ের কাছে ফিরে চাওয়া এক মুঠো আলো 

এক সমুদ্র ভালো থাকা বুকে 

জেগে উঠুক মানুষ ,জেগে উঠুক সভ্যতার প্রতীক মানুষের বোধ। 

.

আমি ফিরে ফিরে আসি বারংবার 

আমার একফালি হৃদয়ের বারান্দায় নতুন দেখা দিন ,

সৌজন্যে বাঙালিয়ানা 

সৌজন্য রসগোল্লা ,কলেজস্ট্রীট ,শ্যামবাজার ,ধর্মতলা 

পুরোনো ট্রাম 

আর এই শহরের ব্যস্ততম দিন। 

.

কিছুই পুরোনো হয় নি 

কিছুই বদলায় নি আজও 

শুধু মানুষ ,শুধু মানুষের চোখে দেখা বাঁচতে চাওয়া দিকদর্শন ,

যদি আকাশের কথা বলি 

মানুষ অবাক চোখে আজও খোঁজে নিজের ভালোথাকা। 

যদি রৌদ্রজ্বল দিন 

মানুষ আজও খোঁজে নিজের বিগত ভুল 

হাত থেকে গলতে থাকা রেত ,কিছু গাণিতিক ভুল ,

তবে মানুষ ফিরে আসে 

মানুষকে ফিরে আসতে হয় নিজের কাছে। 

.

চলন্তিকা তোমাকে বলি 

আমার কাছে ফিরে আসা মানে অন্য একটা দিন ,

আমার কাছে জীবিত থাকা মানে এক সমুদ্র রেত 

আর আমার কাছে জীবন মানে ভালোবাসা 

আর আমার কাছে সময় মানে দিন প্রতিদিন 

মানুষের ভালো থাকাগুলো ছোট ছোট বাক্সে রাখা 

এক অদ্ভুত স্রোত 

ফিরে আসুক মানুষ 

আজ এক খুশির দিন ,শুভ নববর্ষ 

এই শুভেচ্ছায় ,শুধু বলতে চাওয়া ভালো থাকুক মানুষ। 


আমার কবিতারা

আমার কবিতারা
... ঋষি 
আজ বহুদিন এমন কোন কবিতা লিখি নি 
যা সময়কে বিস্মিত করে, 
আজ বহুদিন কবিতারা বুভুক্ষু হয়ে একলা দাঁড়িয়ে দাঁড়িপাল্লায়
চলন্তিকা বলে নি 
এই কবিতা শুধু আমার, এই কবিতায় আমি মরে যেতে পারি। 
.
আজ বহুদিন আকাশের প্যাস্টেল সুখে আমার অনুভূতিরা
কাউকে অবাক করতে পারে নি, 
শুধু হুড়োহুড়ি করে যখনি শব্দরা ভীড় করেছে
শুধু বিষাদ, 
আজ বহুদিন আমি আনন্দের পৃথিবী লিখি নি। 
.
শব্দদের ক্যালাইডোস্কোপে যা দেখেছি আমি 
যা দেখতে চেয়েছি 
সেই মানুষগুলো আজ বহুদিন মেরুদণ্ড সোজা করে দাঁড়ায় নি, 
সোজা মেরুদন্ডে একলা দাঁড়াই নি আমার দেশ। 
আমি যেখানে শুধু লিখতে চেয়েছি ভালোবাসা
আজ বহুদিন চলন্তিকা  আমার বুকে মুখ লুকিয়ে বলে নি 
ভালো আছি,
আমার কবিতারা আজ বহুদিন খুঁজে চলেছে আকাশ
কিন্তু সেই আকাশের ঠিকানায় সত্যি 
না সত্যি বলতে পারে নি। 
.
তবু আমি লিখে চলেছি চলন্তিকা বুকে এক আলাদিন 
লিখে চলেছি পারস্যের সেই অদ্ভুত ওয়েসিস 
শুধুই তৃষ্ণা 
আজ বহুদিন সেই তৃষ্ণা  বুকে আমার কবিতারা
না কোন মানুষের মুখে হাসি ফোটাতে পারে নি। 

প্রেম একলব্য

প্রেম একলব্য  .. ঋষি  একটা মরা মানুষের গল্প লিখবো  লিখবো তোমার রক্তের ভিতর গঙ্গা জলে আমি,  অদ্ভুত যাতনা জানো  তোমার প্রতিটা রক্তবিন্দু এই মু...